উইলিয়াম শেক্সপিয়ার

By MD MOSTOFA Sep 17, 2023
একজন ছেলে আর একজন মেয়ের কখনো বন্ধু হতে পারে না

 

উইলিয়াম শেক্সপিয়ার (William Shakespeare) একজন এংলিশ কবি, নাটককার, লেখক, এবং ভাষাবিদ ছিলেন, যাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবনবৃত্তে প্রায়ই বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুগণ এবং সাহিত্যের শব্দজাদুকর হিসেবে সম্মান করে। শেক্সপিয়ারের সেরা কাজগুলি এংলিশ সাহিত্যের মূলস্তম্ভ হিসেবে পরিচিত, এবং তার কাব্য ও নাটকের কাজ সময়কে পার করে একটি অমূল্যবান ধর্মজুটি হিসেবে বিশ্বভরে প্রচলিত।

 

শেক্সপিয়ারের কিছু সর্বশ্রেষ্ঠ নাটক ও কাব্য সম্মিলিত কিছু উদাহরণ হলো:

হ্যামলেট (Hamlet)

ম্যাকবেথ (Macbeth)

ওথেলো (Othello)

রোমিও ও জুলিয়েট (Romeo and Juliet)

কিং লিয়ার (King Lear)

মিডসামার নাইট্‌স ড্রিম (A Midsummer Night’s Dream)

জুলিয়াস সিজার (Julius Caesar)

তার নাটক ও কাব্যের মাধ্যমে, শেক্সপিয়ার মানুষের মানবীয় অসীম ব্যক্তিত্ব, মানব মনোবৃত্তি, সমাজের বিভিন্ন দিক, প্রেম, শাসন, জীবন ও মৃত্যু ইত্যাদি বিষয়ে গভীর চিন্তা ও বিচার করেছেন। তার লেখা কাব্য ও নাটক এখনো বিশ্বসাহিত্যের এক অমূল্যবান সম্পদ।

বিদ্যার ক্ষেত্রেও, শেক্সপিয়ার একজন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ছিলেন। তার বিদ্যা, সাহিত্য, ও ভাষার জ্ঞান আজো সাহিত্য ও ভাষাবিদের মধ্যে উচ্চ স্তরে মোটামুটি ছড়িয়ে আসছে। তার লেখা সাহিত্য একটি জীবনশিক্ষা হিসেবে প্রয়োজনীয় শিক্ষার উৎস হিসেবে চিহ্নিত হয়।শেক্সপিয়ারের নৃত্যনাট্য ও নৃত্যের কাজগুলি ও একটি প্রমুখ অংশ রাখেন তার সাহিত্যে। তার নৃত্যনাট্যের উদাহরণ হলো “রোমিও ও জুলিয়েট” ও “ম্যাকবেথ” ইত্যাদি।শেক্সপিয়ারের গণমুদ্রণ কাজ ও অন্যান্য চিত্রকলা উদ্যোগগুলি ও উপন্যাস সাহিত্যের একটি অমূল্যবান অংশ হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকে।শেক্সপিয়ারের কাব্য ও নাটক আজো পড়া এবং বিতর্কের উপযোগী সাহিত্য হিসেবে সম্মান পায়। তার লেখা কাব্য ও নাটক মানব সাহিত্যের অমূল্যবান ধর্মজুটি হিসেবে বিশ্বভরে প্রচলিত এবং একটি চিরকালের উপাস্য সাহিত্য হিসেবে বিচার করা হয়।

শেক্সপিয়ার একজন ব্যক্তিগত জীবনেও একটি আগ্রহণীয় জীবন প্রণীত করেন। তার ব্যক্তিগত জীবন নির্দেশক সংগ্রহের অভাব থাকা সত্য, তবে তার জীবনের বেশিরভাগ ঘটনা অজানা আছে। এরপরও, এই অজানা জীবনের বিষয়ে বেশিরভাগ প্রামাণ্য তথ্য আমরা শেক্সপিয়ারের শ্রদ্ধাশ্রধ্দে জানি জন্ম: উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের জন্ম ১৫৬৪ সালের এপ্রিল মাসে ইংল্যান্ডের স্ট্র্যাটফোর্ড-আপন-এভন নামক একটি ছোট গ্রামে হয়। তার পিতা জন শেক্সপিয়ার ছিলেন একজন হ্যাটার (কেমিস্ট) ও শ্রীমন্ত ব্যক্তি।শিক্ষা ও বৃদ্ধি: শেক্সপিয়ার ইংল্যান্ডের গ্রামার স্কুলে শিক্ষা পেয়েছিলেন, তবে তার বেশিরভাগ শিক্ষা স্থানীয় শিক্ষকের নিচে হয়েছিল। তার বৃদ্ধি উচ্চ শ্রীমন্ত পরিবারে না হওয়া সত্যেও, তিনি একজন সাহিত্যিক ও নাট্যকার হিসেবে উচ্চ গুণমানের সাহিত্য ও নাটক লেখার ক্ষমতা বেশিরভাগ আবিষ্কার করেছিলেন।

লন্ডনে কাজ ও সাফল্য: পরিবারের আর্থিক স্থিতি দুর্বল ছিল, তবে শেক্সপিয়ার লন্ডনে এসে একটি নাটক কোম্পানির সদস্য হিসেবে কাজ করেন। লন্ডনে তিনি নাটকের লেখা, অভিনয়, ও নাটক নির্দেশন করেন এবং তার প্রথম সাক্ষরিক উপস্থান হলো “লন্ডনের গ্লোব থিয়েটার” নামক একটি নাট্যঘরে একটি নাটকের লেখা এবং নৃত্যের কাজে।সাহিত্যিক কর্মকাণ্ড এবং সাফল্য শেক্সপিয়ারের সহযোগী নাটক লেখক ও নাটক নির্দেশক ছিলেন রেবেকা সাদার্ন এবং শেক্সপিয়ার নাট্যকার কর্মকাণ্ড এবং নাটকের সাথে সম্প্রেরণ সফল ছিল। এতে উন্নত সাহিত্যিক কর্মকাণ্ডের ফলে তিনি একটি বিশিষ্ট সাহিত্যিক হিসেবে প্রশংসা অর্জন করে।শেক্সপিয়ারের কাব্য ও নাটক তার জীবনের বিভিন্ন দিক ও পর্যায়ে নিয়ে লেখা হয়েছে, এবং তা তার জীবনের ঘটনা এবং সময়ের পরিস্থিতির সাথে পার্থক্য করেছে।

শেক্সপিয়ারের সাহিত্যের কাছে মানব মনোবৃত্তির গবেষণা অত্যন্ত গভীরভাবে করা হয়েছে। তার নাটকে মানুষের মনোবৃত্তির বিভিন্ন প্রকার এবং তা যেভাবে সম্প্রেরণ করে সেটা উপস্থাপিত হয়েছে। এটি প্রেমের আদিকাল থেকে লেখা “রোমিও ও জুলিয়েট” থেকে শ্রেষ্ঠ মানসিক ও ভাবনামূলক প্রস্তাবনা থাকা “হ্যামলেট” পর্যন্ত শেক্সপিয়ারের কাব্য ও নাটকে দেখা যায়।তার কাব্য ও নাটক জীবনের মুখ্য প্রসঙ্গ, যেমন স্নায়ু ও মৃত্যু, শাসন ও রাজনীতি, দরিদ্রতা ও সমাজের বিভিন্ন দিকের প্রতি তার বিচার এবং চিন্তা প্রদান করে। এটি আজো আমাদের সমাজে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে চিন্তা করতে সাহায্য করে এবং শেক্সপিয়ারের সাহিত্য মানবতার প্রশংসা ও মানব অসীম ব্যক্তিত্বের মধ্যে আত্মবিশ্বাস দেয়।সংক্ষেপণে উল্লিখিত, শেক্সপিয়ার একজন বিশেষ সাহিত্যিক ছিলেন যার কাব্য ও নাটক মানব জীবনের গভীর দিক ও চুক্তির সাথে নেতিবাচক ছিল, এবং তার কাব্য ও নাটক এখনো বিশ্বসাহিত্যে এক অমূল্যবান সম্পদ হিসেবে চিহ্নিত হয়।উইলিয়াম শেক্সপিয়ার একজন বিশেষ গবেষক ও শিক্ষাবিদ হিসেবেও প্রশংসিত ছিলেন। তার সাহিত্য ও নৃত্য নাট্য বিদ্যা ছিল একটি শিক্ষার উৎস।

তিনি একজন কৌশলী ভাষাবিদ ছিলেন এবং তার কাব্যে সবচেয়ে সুন্দর ও গভীর শব্দবাণী প্রকাশ পেয়েছিলেন। তার কাব্যে শব্দের ব্যবহার একটি সুন্দর সাহিত্যিক অভিজ্ঞান তৈরি করেছে, এবং তিনি সাহিত্যের শব্দগত শৃংগারের নয় কেবল সাহিত্যিক মানদণ্ডের স্তরেও উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছেন।শেক্সপিয়ার একটি মহৎ সাহিত্যিক উৎসও ছিল ইতিহাস ও সমাজের পরিস্থিতি সম্পর্কে। তার নাটকে ইতিহাসের ঘটনাগুলি, বৈচারিক উন্মুক্তি, এবং সমাজের বিভিন্ন মূল্যবোধ এবং চুক্তির বিষয়ে গভীরভাবে চিন্তা করা হয়েছে।সর্বশেষত, শেক্সপিয়ার একজন বিশেষজ্ঞ মানববিজ্ঞান ও মানবজীবনের প্রেক্ষাপটে। তার কাব্য ও নাটকে মানুষের মনোবৃত্তির গবেষণা অত্যন্ত গভীরভাবে করা হয়েছে, এবং তার সাহিত্য মানবতার প্রশংসা ও মানব অসীম ব্যক্তিত্বের মধ্যে আত্মবিশ্বাস দেয়।

শেক্সপিয়ারের কাব্য ও নাটক মানব সাহিত্যের অমূল্যবান ধর্মজুটি হিসেবে বিশ্বভরে প্রচলিত এবং একটি চিরকালের উপাস্য সাহিত্য হিসেবে বিচার করা হয়। এই দীর্ঘ সাহিত্যিক যাত্রায় শেক্সপিয়ার একজন মহৎ সাহিত্যিক হিসেবে বিশ্বের প্রশংসা পেয়ে থাকেন এবং তার কাব্য ও নাটক চিরকালের সাহিত্যে এক অমূল্যবান সম্পদ হিসেবে পৌঁছে আসে।

শেক্সপিয়ারের জীবনে একটি রহস্যময় দিক হলো তার লেখা শেক্সপিয়ার বই এবং তার ব্যক্তিগত জীবনের মধ্যে অজানা কিছু বিষয়ের অস্তিত্ব। তার সবচেয়ে প্রসিদ্ধ কাব্য এবং নাটক এইসব অজানা তথ্যের মধ্যে বিচার করা হয়েছে, যেগুলি তার সময়ে লেখা হয়নি এবং তার সাহিত্যিক কর্মকাণ্ডের নির্দেশক অবশ্যই আপনাতেননি।শেক্সপিয়ারের ব্যক্তিগত জীবনে একটি রহস্যময় দিক হলো তার নাটকের ব্যক্তিগত অংশ, যেগুলি তার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞান ও সম্পর্কে বেশ কিছু জ্ঞাত নেই। তিনি লেখা নাটকের মাধ্যমে বিভিন্ন ধর্ম, সাহিত্য, ও সমাজের পর্যায়ে চিন্তা করে এবং তার সাহিত্য আজো আমাদের সমাজে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে চিন্তা করতে সাহায্য করে।

শেক্সপিয়ারের সাহিত্য মানব মনোবৃত্তির গবেষণা অত্যন্ত গভীরভাবে করা হয়েছে এবং তার নাটকে মানুষের মনোবৃত্তির বিভিন্ন প্রকার এবং তা যেভাবে সম্প্রেরণ করে সেটা উপস্থাপিত হয়েছে। তার কাব্যে শব্দের ব্যবহার একটি সুন্দর সাহিত্যিক অভিজ্ঞান তৈরি করেছে, এবং তিনি সাহিত্যের শব্দগত শৃংগারের নয় কেবল সাহিত্যিক মানদণ্ডের স্তরেও উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছেন।শেক্সপিয়ার একটি মহৎ সাহিত্যিক উৎসও ছিল ইতিহাস ও সমাজের পরিস্থিতি সম্পর্কে। তার নাটকে ইতিহাসের ঘটনাগুলি, বৈচারিক উন্মুক্তি, এবং সমাজের বিভিন্ন মূল্যবোধ এবং চুক্তির বিষয়ে গভীরভাবে চিন্তা করা হয়েছে।শেক্সপিয়ারের কাব্য ও নাটক মানব সাহিত্যের অমূল্যবান ধর্মজুটি হিসেবে বিশ্বভরে প্রচলিত এবং একটি চিরকালের উপাস্য সাহিত্য হিসেবে বিচার করা হয়। এ শেক্সপিয়ারের কাব্য ও নাটকে সাধারণ মানুষের মানসিকতা এবং মানব সমাজের পরিস্থিতির মধ্যে গভীর অধ্যয়ন হয়েছে। তার নাটকে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি এবং স্তরের মানুষের জীবন এবং মনোবৃত্তির নিরীক্ষণ ও বর্ণনা করা হয়েছে, যেগুলি তার সাহিত্যের প্রধান বিষয়।

শেক্সপিয়ারের সাহিত্যের একটি অবশেষ্য দিক হলো তার নাটকে মহিলা চরিত্রগুলির প্রতি সহজে বোঝা যায় যে মহিলা সমাজে অবস্থান করেন, তার মানসিকতা এবং মূল্যবোধ এবং তাদের সাথে যে সমাজ পর্যাপ্ত যোগাযোগ হয় সেটা স্পষ্ট করতে। এই মহিলা চরিত্রের নিরীক্ষণ এবং বর্ণনা একটি সামাজিক এবং সাহিত্যিক প্রশ্ন উত্তেজনা করে এবং মহিলাদের সমাজের ভূমিকা ও প্রভাবের উপর চিন্তা করতে সাহায্য করে।শেক্সপিয়ার নাটকে মানব মূল্য, মৌলিক নীতি, ধর্ম, ন্যায় এবং নৈতিকতা এবং সমাজের বিভিন্ন দিকের চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হয়েছে। এই সমাজিক ও নৈতিক প্রশ্নগুলি আজও গুরুত্বপূর্ণ এবং তার নাটক মানব সমাজের মধ্যে নিত্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে চিহ্নিত হয়।

শেক্সপিয়ারের সাহিত্য আজো আমাদের সমাজে গুরুত্বপূর্ণ এবং আদর্শ সাহিত্য হিসেবে চিন্তা করা হয় এবং তার সাহিত্য মানবতার প্রশংসা ও মানব অসীম ব্যক্তিত্বের মধ্যে আত্মবিশ্বাস দেয়। তার কাব্য ও নাটক মানব জীবনের গভীর দিক এবং চুক্তির সাথে নেতিবাচক ছিল, এবং এই ধারণাগুলি সাহিত্যিক প্রশাসন, শিক্ষাবিদ, ও সমাজ পর্যায়ে উপাস্য হয়ে থাকে।শেক্সপিয়ার সাহিত্যে মৃত্যু এবং মানব জীবনের অস্থায়ীতা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তার নাটকে মৃত্যু এবং জীবনের অস্থায়ীতা সাধারণভাবে চিন্তা করা হয়েছে, এবং এই বিষয়গুলি তার কাব্য ও নাটকের মধ্যে মূল উপাস্য বিষয় হিসেবে উল্লেখ পেয়েছে। মৃত্যু এবং অস্থায়ীতা শেক্সপিয়ারের লেখা নাটকের মুখ্য প্রসঙ্গ ছিল, এবং এটি মানব জীবনের নিশ্চয়তা এবং মৃত্যুর সাথে সম্পর্কে চিন্তা করতে সাহায্য করে।শেক্সপিয়ার একজন বিশেষ গবেষক ও শিক্ষাবিদ হিসেবেও প্রশংসিত ছিলেন। তিনি সাহিত্য ও নৃত্য নাট্য বিদ্যা ছিল একটি শিক্ষার উৎস।

শেক্সপিয়ারের সাহিত্যের একটি অবশেষ্য দিক হলো তার ব্যক্তিগত জীবনের অপরূপ জটিলতা এবং অদ্ভুত লেখা শেক্সপিয়ার বই এবং তার ব্যক্তিগত জীবনের মধ্যে অজানা কিছু বিষয়ের অস্তিত্ব। তার সবচেয়ে প্রসিদ্ধ কাব্য এবং নাটক এইসব অজানা তথ্যের মধ্যে বিচার করা হয়নি এবং তার সাহিত্যিক কর্মকাণ্ডের নির্দেশক অবশ্যই আপনাতেননি।শেক্সপিয়ারের ব্যক্তিগত জীবনে একটি রহস্যময় দিক হলো তার নাটকের ব্যক্তিগত অংশ, যেগুলি তার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞান ও সম্পর্কে বেশ কিছু জ্ঞাত নেই। তিনি লেখা নাটকের মাধ্যমে বিভিন্ন ধর্ম, সাহিত্য, ও সমাজের পর্যায়ে চিন্তা করে এবং তার সাহিত্য আজো আমাদের সমাজে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে চিন্তা করতে সাহায্য করে।শেক্সপিয়ারের সাহিত্য মানব মনোবৃত্তির গবেষণা অত্যন্ত গভীরভাবে করা হয়েছে এবং তার নাটকে মানুষের মনোবৃত্তির বিভিন্ন প্রকার এবং তা যেভাবে সম্প্রেরণ করে।

শেক্সপিয়ার শিল্পকলা ও নৃত্যের মহান প্রশংসা পানেন। তার নাটক এবং পৌরাণিক কাহিনীগুলি রসিকদের জন্য অদ্ভুত নৃত্য স্যুইট সরবরাহ করে, এবং এই সুন্দর নৃত্যের মাধ্যমে তার নাটকের গল্প ও চরিত্রগুলি আরও জীবন্ত ও প্রভাবশালী হয়ে থাকে।শেক্সপিয়ারের জীবনে একটি আরও গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো তার সাহিত্যিক উৎপত্তির বাংলা ট্রেন্সলেশন ও বিশ্বসাহিত্যের প্রসারণে তার কাজের গুরুত্ব। তার নাটক এবং কাব্যের বাংলা অনুবাদ ও বিশ্বসাহিত্যে তার কাব্য ও নাটকের সৌন্দর্য, ধারণা, এবং সাহিত্যিক মানদণ্ড বৃদ্ধি করেছে। তার বাংলা অনুবাদগুলি বাঙালি পাঠকের শেক্সপিয়ার কাব্য ও নাটকের পরিচয় দেয় এবং তাদের এই মহৎ সাহিত্যিক জীবনের একটি সুখদ অংশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে।শেক্সপিয়ারের কাব্য ও নাটক মানব সাহিত্যের অমূল্যবান ধর্মজুটি হিসেবে বিশ্বভরে প্রচলিত এবং একটি চিরকালের উপাস্য সাহিত্য হিসেবে বিচার করা হয়। এই দীর্ঘ সাহিত্যিক যাত্রায় শেক্সপিয়ার একজন মহৎ সাহিত্যিক হিসেবে বিশ্বের প্রশংসা পেয়ে থাকেন এবং তার কাব্য ও নাটক চিরকালের সাহিত্যে এক অমূল্যবান সম্পদ হিসেবে পৌঁছে আসে।

শেক্সপিয়ার সাহিত্যের অপর একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো তার ভাষা ও শব্দের ব্যবহার। তিনি ইংলিশ ভাষা ও শব্দের মহান শিল্পী ছিলেন এবং তার কাব্য ও নাটকে শব্দের সাহিত্যিক উপাদান একটি অমূল্যবান সৌন্দর্য তৈরি করেছে। তার শব্দগুলি মানব মনোবৃত্তি, সমাজ, ও মানব অসীম ব্যক্তিত্বের গভীর দিকগুলি প্রকাশ করে এবং তার সাহিত্য আজো আমাদের সমাজে গুরুত্বপূর্ণ সাহিত্যিক ব্যক্তিত্বের মধ্যে আত্মবিশ্বাস দেয়।শেক্সপিয়ারের নাটকে একটি অপর গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো তার কাব্য ও নাটকে রচনাশৈলী এবং নৃত্যশৈলী। তার রচনাশৈলী এবং ভাষা নৃত্য নাট্যের সুন্দর স্বভাব ও কাব্য নৃত্য শৃংগারের নয় কেবল সাহিত্যিক মানদণ্ডের স্তরেও উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছে। তার নাটকের চরিত্রগুলি সাহিত্যিক প্রকাশগুলি ছিলেন, এবং এই ধারণাগুলি সাহিত্যিক প্রশাসন, শিক্ষাবিদ, ও সমাজ পর্যায়ে উপাস্য হয়ে থাকে।শেক্সপিয়ারের সাহিত্য আজো আমাদের সমাজে গুরুত্বপূর্ণ এবং আদর্শ সাহিত্য হিসেবে চিন্তা করা হয় এবং তার সাহিত্য মানবতার প্রশংসা ও মানব অসীম ব্যক্তিত্বের মধ্যে আত্মবিশ্বাস দেয়। তার কাব্য ও নাটক মানব জীবনের গভীর দিক এবং চুক্তির সাথে নেতিবাচক ছিল, এবং এই ধারণাগুলি সাহিত্যিক প্রশাসন, শিক্ষাবিদ, ও সমাজ পর্যায়ে উপাস্য হয়ে থাকে।

শেক্সপিয়ারের সাহিত্য একটি বিশেষ সাহিত্যিক সম্পদ এবং উত্কৃষ্ট লেখার উদাহরণ। তার কাব্য ও নাটক মানব মনোবৃত্তি, সমাজ, এবং মানব সমাজের বিভিন্ন দিকের চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে গভীর চিন্তা করতে সাহায্য করে।শেক্সপিয়ারের সাহিত্য সম্পর্কে বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ একটি দিক হলো তার নাটকের চরিত্রগুলি ও তার মানসিকতা নিরীক্ষণ। তার নাটকে মহিলা চরিত্রগুলির প্রতি সহজে বোঝা যায় যে মহিলা সমাজে অবস্থান করেন, তাদের মানসিকতা এবং মূল্যবোধ এবং তাদের সাথে যে সমাজ পর্যাপ্ত যোগাযোগ হয় সেটা স্পষ্ট করতে। এই মহিলা চরিত্রের নিরীক্ষণ এবং বর্ণনা একটি সামাজিক এবং সাহিত্যিক প্রশ্ন উত্তেজনা করে এবং মহিলাদের সমাজের ভূমিকা ও প্রভাবের উপর চিন্তা করতে সাহায্য করে।শেক্সপিয়ার নাটকে মৃত্যু, মানব মূল্য, ধর্ম, ন্যায়, এবং নৈতিকতা এবং সমাজের বিভিন্ন দিকের চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হয়। এই সমাজিক ও নৈতিক প্রশ্নগুলি আজও গুরুত্বপূর্ণ এবং তার নাটক মানব সমাজের মধ্যে নিত্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে চিহ্নিত হয়।শেক্সপিয়ারের সাহিত্য মানব মনোবৃত্তির গবেষণা অত্যন্ত গভীরভাবে করা হয় এবং তার নাটকে মানুষের মনোবৃত্তির বিভিন্ন প্রকার এবং তা যেভাবে সম্প্রেরণ করে সেটা উপস থাপন করে।

By MD MOSTOFA

Permanent address:- vill: Ballavbishu, Post: Bhutchhara, Upazilla: kaunia, District: Rangpur

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *