প্রেম কি? প্রেম কত প্রকার ও কি কি

By MD MOSTOFA Aug 14, 2023

ইতিবাচক ও নেতিবাচক দুই ধরনের প্রেম রয়েছে। দেখুন প্রেম কি? প্রেম কত প্রকার ও কি কি?

রাগ, অনুরাগ, মান, অভিমান, সুখ, দুঃখ, কষ্ট, কাম, বাসনা, স্নেহ, যত্ন , আনন্দ ইত্যাদির সংমিশ্রণে সৃষ্টি হয় প্রেম। সবারই প্রেম সম্পর্কে জানার আগ্রহ থাকে। গবেষণায় দেখা গেছে, মানুষ জীবনের কোন না কোন পর্যায়ে প্রেমে পড়ে। আমরা আজকের পোস্টে দেখাবো প্রেম কি? প্রেমের অর্থ কি? প্রেম কত প্রকার ও কি কি?

প্রেম কি?

প্রেম মানে হলো ‘আসক্তি’। মানুষ যেকোন সময় প্রেমে পড়তে পারে। প্রেমের ইংরেজি পরিভাষা হলো ‘Love’। প্রেম মূলত ফারসি শব্দ ‘রোম্যান্স’ (romance‌) থেকে এসেছে। প্রেমের সমার্থক শব্দ হচ্ছে পিরিত, ভালোবাসা, লাভ, অনুরাগ, প্রীতি, প্রণয় ইত্যাদি। প্রেমকে হিন্দিতে বলা হয় পেয়ার (Pyaar) এবং উর্দুতে বলা হয় মহব্বত (Mohabbat)।

ভালো লাগা ও ভালোবাসা থেকেই তৈরি হয় প্রেম। প্রেমে পড়লে পছন্দের মানুষটির প্রতি আলাদা টান (caring) চলে আসে। আশির দশকে প্রেম করা অনেক কঠিন ছিল। তখন বার্তা পাঠানোর একমাত্র মাধ্যম ছিল ‘চিঠি’। তবে এখনকার পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আলাদা। সবার হাতে হাতে ‘প্রেমাস্ত্র’, ভালোবাসা আদান প্রদান হয় মেসেঞ্জারে। তবে মাধ্যমে বদল আসলেও প্রেমের অনুভূতি কিন্তু একই আছে!

প্রেমের কোন নির্দিষ্ট সংজ্ঞা নেই। বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে প্রেমের সংজ্ঞা ভিন্ন হতে পারে। প্রেমের কয়েকটি জনপ্রিয় সংজ্ঞা এবং প্রেম সম্পর্কে কয়েকজন বিখ্যাত ব্যক্তির মতামত নিচে তুলে ধরা হলো:

Love is a strong emotion or feeling of affection for someone or something. It is often used to refer to a strong connection between two people, but it can also be used to describe strong feelings of attachment for a place, activity, or idea.

প্রেম হলো একটি ভালো লাগার অনুভূতি যা মানুষকে আসক্ত করে এবং কামনা জাগ্ৰত করে।

প্রেম একজন মানুষকে অন্ধ ও বধির করতে পারে।

শত চেষ্টার পরেও কাউকে ভুলতে না পারার নামই প্রেম।

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মুহাম্মদ রহমত উল্লাহ বলেছেন, ‘ভালবাসা ও প্রেম এক জিনিস নয়। একটায় মিশ্রিত থাকে আবেগ, স্নেহ, শ্রদ্ধা ও সমীহের ভাব। অন্যটায় থাকে কেবল ‘কামনা’। ভালবাসার সাথে কামনা যুক্ত হলেই তা প্রেম।’

নন্দিত গল্পকার হুমায়ূন আহমেদ বলেছেন, ‘যুদ্ধ এবং প্রেমে কোনো কিছুই পরিকল্পনা মতো হয় না।’

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছেন, ‘আনন্দকে ভাগ করলে দুইটি জিনিস পাওয়া যায়, একটি হলো ‘জ্ঞান’ এবং অপরটি হচ্ছে ‘প্রেম’।’

বিখ্যাত লেখক বায়রন বলেছেন, ‘প্রেম মানুষকে শান্তি দেয়, কিন্তু কখনো স্বস্তি দেয় না’।

প্রেম কত প্রকার ও কি কি?

প্রেম কিংবা ভালোবাসা বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। আমরা সবাই আমাদের‌ বাবাকে ভালোবাসি । বাবার প্রতি সন্তানের ভালোবাসা আর বয়ফ্রেন্ডের প্রতি গার্লফ্রেন্ডের ভালোবাসা কিন্তু এক নয়। এই প্রেম, ভালোবাসা ও ভালো লাগার মাঝে অনেক তফাৎ রয়েছে। কৈশোরে কিংবা শুধু স্কুল লাইফেই নয়, বিয়ের পরেও প্রেম হতে পারে। আজকাল আমরা পত্রিকার পাতা ওল্টালেই পরকীয়া প্রেমের খবর দেখতে পাই। বিভিন্ন প্রকার প্রেম সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হলো:

পারিবারিক প্রেম : পৃথিবীতে প্রায় ৩০০ টি স্বাধীন রাষ্ট্র আছে। প্রত্যেকটি দেশের আচার আচরণ, শিল্প, সংস্কৃতি, আইন-কানুনের মধ্যে ভিন্নতা লক্ষ করা যায়। আবার একেকটি দেশ একেকটি কারণে বিখ্যাত। তবে পৃথিবীতে এমন কোন দেশ খুঁজে পাওয়া যাবে না, যে দেশে পারিবারিক বন্ধন নেই। মা, বাবা, ভাই, বোন নিয়েই পারিবারিক বন্ধন গড়ে ওঠে। মা, বাবা, ভাই, বোনের নিঃস্বার্থ ভালোবাসার তুলনা নেই। বাবা, মা, ভাই, বোনের প্রেমের মূল্যও কখনো পরিশোধ করা যায় না। পারিবারিক প্রেম আছে বলেই পৃথিবী এতো সুন্দর।

দেশপ্রেম : দেশের প্রতি মানুষের যে আবেগ, ভালোবাসা তাই দেশপ্রেম। ১৯৭১ সালের ২৬ শে মার্চ প্রায় ৩০ লক্ষ শহীদের তাজা রক্তের বিনিময়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। ১৯৭২ সালের ১৫ আগস্ট দেশপ্রেমিক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ পরিবারে নিহত হয়েছেন। যারা প্রকৃত দেশপ্রেমিক তাঁরা দেশের জন্য জীবন দিতেও দ্বিধা করে না। তাঁরা সারা জীবন দেশের উন্নয়ন ও কল্যাণের জন্য কাজ করে ।

ধর্ম প্রেম : ধর্মের প্রতি অতিরিক্ত আসক্তিই ধর্ম প্রেম।বাংলাদেশে মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান ধর্মের লোক বাস করে। সব ধর্মই কিন্তু শান্তির কথা বলে। হিংসা, বিদ্বেষ, হানাহানি, মারামারি, সব ধর্মেই নিষিদ্ধ। ‘জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২’ এর তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশের শতকরা ৯১.৪ ভাগ মানুষ মুসলিম। এদেশের মুসলিমরা ইসলাম ধর্মকে মনে প্রাণে ভালোবাসে।

দাম্পত্য প্রেম: স্বামী-স্ত্রীর প্রেমকে ‘দাম্পত্য প্রেম’ বলা হয়। এটি পৃথিবীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ প্রেম । সংসারের সুখের জন্য স্বামী-স্ত্রীর প্রেম খুব দরকার। অনেক স্বামীর সফলতার পেছনে তাঁর স্ত্রীর অবদান রয়েছে। তাই আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশে ‘দাম্পত্য প্রেম’ খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

জীব প্রেম: একজন ভালো মানুষের একটি বিশেষ গুন হলো জীব প্রেম । জীবের প্রতি দয়া দেখানো মহত্ত্বের লক্ষণ। এইতো কয়েক বছর আগেই ছোট ‘অর্থি’র কান্নার ছবি সারা দেশে ভাইরাল হয়েছিল। ‘অর্থি’ কোরবানির হাটে নিজের পোষা গরু বিক্রির সময় কান্নায় ভেঙে পড়েছিল। সেই সময় প্রথম আলোতে ‘অর্থি কেন কাঁদছিল ‘ শিরোনামে একটি প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়। দুনিয়াতে জীবের প্রতি এমন নিঃস্বার্থ ভালোবাসা সত্যিই বিরল। জীব প্রেম নিঃসন্দেহে একটি ভালো কাজ।

আরও পড়ুন: জীবপ্রেম সংক্রান্ত প্রতিবেদন ‘অর্থি কেন কাঁদছিল’

প্রেমিক-প্রেমিকার প্রেম : অনেকে প্রেম বলতে শুধু প্রেমিক-প্রেমিকার প্রেমকেই বোঝে। একজন পুরুষ ও নারী যখন একে অপরের প্রতি আসক্ত হয় এবং তাদের মধ্যে অবৈধ কামনা জাগ্ৰত হয় তখন তাকে প্রেমিক-প্রেমিকার প্রেম বলে। এই প্রেমের একটি বিশেষ দিবসও আছে । সারা বিশ্বে প্রতিবছর ১৪ ফেব্রুয়ারী ‘বিশ্ব ভালোবাসা দিবস’ পালন করা হয়। প্রেমিক-প্রেমিকার প্রেম বিভিন্ন ধরনের হতে পারে।

পরকীয়া প্রেম: বিয়ের পরে যখন অবৈধভাবে কোন বেগানা নারী ও পুরুষের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে ওঠে তখন তাকে পরকীয়া প্রেম বলে। পরকীয়া প্রেমের কারণে সংসারে সুখ শান্তি নষ্ট হয় এবং ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকে। ‘কাতার প্রবাসী স্বামীর সুন্দরী স্ত্রী পরকীয়া প্রেমে লিপ্ত’ এমন খবর আমরা অহরহ দেখি। বর্তমান সমাজে পরকীয়া প্রেম বিষবাষ্পের মতো ছড়িয়ে পড়ছে। তাই পরকীয়া প্রেম নিঃসন্দেহে একটি খারাপ কাজ।

চুক্তিবদ্ধ প্রেম: যখন নারী ও পুরুষের মধ্যে নির্দিষ্ট সময়ে জন্য পারস্পরিক সমঝোতার ভিত্তিতে প্রেম হয় তখন তাকে চুক্তিবদ্ধ প্রেম বলে। সাধারণ উন্নত দেশগুলোতে এরকম প্রেমের প্রচলন বেশি। আমেরিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ভাড়ার বিনিময়ে সঙ্গী পাওয়া যায়। তবে চুক্তিবদ্ধ প্রেমের অনেক নেতিবাচক দিক রয়েছে।

বিবিধ প্রেম: আমরা উপরে পারিবারিক প্রেম, দেশপ্রেম, ধর্মপ্রেম, দাম্পত্য প্রেম, জীবপ্রেম, প্রেমিক-প্রেমিকার প্রেম, পরকীয়া প্রেম, চুক্তিবদ্ধ প্রেম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করলাম। এছাড়া আরও বিভিন্ন ধরনের প্রেম রয়েছে। যেমন:

আত্মপ্রেম – [Self love]

বন্ধুত্বপূর্ণ প্রেম – [Friendly love]

সহানুভূতিশীল প্রেম – [Compassionate love]

স্নেহময় প্রেম – [Affectionate love]

রোমান্টিক প্রেম – [Romantic love]

সামাজিক প্রেম – [Social love]

অসাম্প্রদায়িক প্রেম – [Non-communal love]

ঐতিহাসিক প্রেম – [Historical love]

শূন্য প্রেম – [Empty love]

মিথ্যা প্রেম – [False love]

স্থায়ী প্রেম – [Enduring love]

অস্থায়ী প্রেম – [Temporary love]

নিঃশর্ত প্রেম – [Unconditional love]

ত্রিভূজ প্রেম – [Triangle love]

ভ্রাম্যমাণ প্রেম – [Roaming love]

সুপ্ত প্রেম – [Dormant love]

অপরিণত প্রেম – [Immature love]

ব্যর্থ প্রেম – [Failed love]

অসমাপ্ত প্রেম – [Uncomplete love]

পবিত্র প্রেম – [Holy love]

শেষ কথা

আমরা আজকের পোস্টে প্রেম সম্পর্কে জানানোর চেষ্টা করেছি। যারা পুরো পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়েছেন তারা এতক্ষণে প্রেম কি? প্রেমের অর্থ কি? প্রেম কত প্রকার ও কি কি? তা জেনে গেছেন। প্রেমের যেমন বিভিন্ন ইতিবাচক দিক রয়েছে তেমনি অনেক নেতিবাচক দিকও রয়েছে। বর্তমান প্রজন্ম খুব সহজেই প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে আবার ভেঙেও ফেলে । অনেকে প্রেমের প্রকৃত অর্থ না বুঝে শুধু ডেট করেই সময় পার করে। তাই প্রেমে পড়ার আগে অবশ্যই প্রেমের নেতিবাচক দিকগুলোর প্রতি নজর দেয়া উচিত।

By MD MOSTOFA

Permanent address:- vill: Ballavbishu, Post: Bhutchhara, Upazilla: kaunia, District: Rangpur

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *