কমিউনিটি ব্যাংক লোন তালিকা (কিস্তি চার্ট) ও লোন পদ্ধতি

By MD MOSTOFA Aug 19, 2023 #News

বিভিন্ন কারণে কমিউনিটি ব্যাংক লোন তালিকা বা চার্টের প্রয়োজন হয়। সাধারণত কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ পুলিশ সদস্যদের কাছ থেকে মূলধন সংগ্রহ করে এবং সংগৃহীত মূলধন থেকে লোন দিয়ে থাকে। কমিউনিটি ব্যাংক থেকে লোন নেয়ার সুবিধা ও অসুবিধা দুটিই রয়েছে। দেখুন কমিউনিটি ব্যাংক লোন তালিকা ও লোন পদ্ধতি।

কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশের একটি ব্যাতিক্রমধর্মী আর্থিক প্রতিষ্ঠান। এটি ৪০০ কোটি টাকা অনুমোদিত এবং ১০০ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধন নিয়ে ২০১৯ সালে ‘কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড’ নামে যাত্রা শুরু করে। এটি বাংলাদেশের একটি বেসরকারি মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক। কমিউনিটি ব্যাংক ২০২০ সালের ৭ মার্চ ‘কমিউনিটি ক্যাশ’ নামে একটি মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপস চালু করে। বর্তমানে ব্যাংকটির চেয়ারম্যানের দ্বায়িত্ব পালন করছেন জনাব চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল-মামুন এবং জনাব মশিহুল হক চৌধুরী এমডি ও সিইও পদে কর্মরত আছেন । (তথ্যসূত্র: কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড)

কমিউনিটি ব্যাংক লোন পদ্ধতি (community bank loan system)

সাধারণ ব্যাংকগুলোর তুলনায় কমিউনিটি ব্যাংকের লোন পদ্ধতি একটু জটিল। চাইলেই যে কেউ এই ব্যাংক থেকে লোন নিতে পারে না। এটি বাংলাদেশ পুলিশের মালিকানাধীন একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান। পুলিশ সদস্যদের আর্থিক কল্যানের উদ্দেশ্যই এই ব্যাংকটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

ব্যাংকটি পুলিশ সদস্যদের নিকট থেকে আমানত সংগ্রহ করে। সংগৃহীত আমানতের কিছু অংশ রেখে বাকি অর্থ পুলিশ সদস্যদের ঋণ হিসেবে প্রদান করে। কমিউনিটি ব্যাংকের মূলধনের অন্যতম উৎস ডিপিএস। এখানে বাংলাদেশ পুলিশের সকল সদস্যর সর্বনিম্ন ৩২,০০০ টাকা রাখা বাধ্যতামূলক।

কমিউনিটি ব্যাংক থেকে লোন পেতে বেশ কয়েকটি ধাপ অতিক্রম করতে হবে। আমরা সেগুলো স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করব। দেখুন কমিউনিটি ব্যাংক থেকে লোন পেতে যা যা লাগবে:

১. কমিউনিটি ব্যাংকে‌ একটি একাউন্ট (হিসাব) থাকতে হবে।

২. একজন জামানতকারী (গ্যারান্টার) ও দুইজন সাক্ষী লাগবে।

৩. আবেদনকারীর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র। যথা:

জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি

পাসপোর্ট সাইজ ছবি (৩ কপি)

বিপি আইডি কার্ড

টিন সার্টিফিকেট (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

জিপিএফ নাম্বার (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

অফিস আইডি

নিজ ব্রাঞ্চের নাম

নিজ ব্রাঞ্চের ইমেইল ঠিকানা (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

চেক বই

অন্যান্য কাগজপত্র (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

৪. জামানতকারীর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র। যথা:

জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি

পাসপোর্ট সাইজ ছবি (২ কপি)

বিপি আইডি কার্ড ও অফিস আইডি কার্ড (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

অন্যান্য কাগজপত্র (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

৫. আবেদন ফরম।

কমিউনিটি ব্যাংক লোন সুদের হার: কমিউনিটি ব্যাংক পার্সোনাল লোন, এসএমই লোন, গৃহ লোন ইত্যাদি লোন দিয়ে থাকে। বর্তমানে কমিউনিটি ব্যাংকে পার্সোনাল লোনের সুদের হার ৯% এবং এসএমই লোনের সুদের হার ৭% ।

কমিউনিটি ব্যাংক লোন পদ্ধতি (সিস্টেম): কমিউনিটি ব্যাংক থেকে লোন পাওয়ার উপায় জানতে চান? দেখুন কিভাবে কমিউনিটি ব্যাংক থেকে পার্সোনাল লোন নিবেন।

ধাপ ১: প্রথমে আপনাকে কমিউনিটি ব্যাংকের যেকোন শাখায় একটি একাউন্ট (হিসাব) খুলতে হবে।

ধাপ ২: এরপর যে শাখায় একাউন্ট (হিসাব) খুলেছেন, সেখান থেকে লোনের আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে হবে।

ধাপ ৩: একজন জামানতকারী (গ্যারান্টার) ও দুইজন সাক্ষীর ব্যবস্থা করতে হবে।

ধাপ ৪. আপনার ও জামানতকারীর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করতে হবে।

ধাপ ৫: এবার সঠিক তথ্য দিয়ে আবেদন ফরমটি যথাযথভাবে পূরণ করতে হবে।

ধাপ ৬: তারপর সংশ্লিষ্ট শাখায় প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদন ফরমটি জমা দিতে হবে

ধাপ ৭: লোনের আবেদন মঞ্জুর (পাশ) অথবা প্রত্যাখ্যান হবে।

ধাপ ৮: লোন বিতরণ করা হবে।

কমিউনিটি ব্যাংক লোন তালিকা (community bank loan chart)

বাংলাদেশ পুলিশের সকল সদস্যই কমিউনিটি ব্যাংকের শেয়ার হোল্ডার। তাই কমিউনিটি ব্যাংকে ‘পুলিশ ব্যাংক’ও বলা হয়। যখন কোন পুলিশ সদস্য লোন নিতে চান তখন কমিউনিটি ব্যাংক লোনের তালিকা খুঁজে থাকেন। কারণ কমিউনিটি ব্যাংক লোন তালিকা (কিস্তি চার্ট) দেখে সহজেই মাসিক কিস্তি সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায়।

সাধারণত লোন ক্যালকুলেশন চার্টে ১ থেকে ১০ বছর মেয়াদি লোনের মাসিক কিস্তির পরিমান সুন্দরভাবে সাজানো থাকে। উপরে ৯% সুদে কমিউনিটি ব্যাংকের লোন তালিকা দেয়া হয়েছে। এছাড়া ৯% সুদে কমিউনিটি ব্যাংকের ১-৯ বছর মেয়াদি পার্সোনাল লোনের মাসিক কিস্তি চার্ট নিচে দেয়া হলো:

লোনের পরিমাণ – ১ বছরের মাসিক কিস্তি – ২ বছরের মাসিক কিস্তি – ৩ বছরের মাসিক কিস্তি – ৪ বছরের মাসিক কিস্তি – ৫ বছরের মাসিক কিস্তি – ৬ বছরের মাসিক কিস্তি – ৭ বছরের মাসিক কিস্তি – ৮ বছরের মাসিক কিস্তি – ৯ বছরের মাসিক কিস্তি (লোন ও মেয়াদভিত্তিক মাসিক কিস্তির পরিমাণ পর্যায়ক্রমে সাজানো হয়েছে)

১,০০,০০০ টাকা – ৮৭৪৬ – ৪৫৬৯ – ৩১৮০ – ২৪৮৯ – ২০৭৬ – ১৮০৩ – ১৬০৯ – ১৪৬৬ টাকা – ১৩৫৫ টাকা

২,০০,০০০ টাকা – ১৭৪৯১ – ৯১৩৭ – ৬৩৬০ – ৪৯৭৮ – ৪১৫২ – ৩৬০৬ – ৩২১৮ – ২৯৩১ টাকা – ২৭০৯ টাকা

৩,০০,০০০ টাকা – ২৬২৩৬ – ১৩৭০৬ – ৯৫৪০ – ৭৪৬৬ – ৬২২৮ – ৫৪০৮ – ৪৮২৭ – ৪৩৯৬ টাকা – ৪০৬৩ টাকা

৪,০০,০০০ টাকা – ৩৪৯৮১ – ১৮২৭৪ – ১২৭২০ – ৯৯৫৫ – ৮৩০৪ – ৭২১১ – ৬৪৩৬ – ৫৮৬১ টাকা – ৫৪১৮ টাকা

৫,০০,০০০ টাকা – ৪৩৭২৬ – ২২৮৪৩ – ১৫৯০০ – ১২৪৪৩ – ১০৩৩০ – ৯০১৩ – ৮০৪৫ – ৭৩২৬ টাকা – ৬৭৭২ টাকা

৬,০০,০০০ টাকা – ৫২৪৭১ – ২৭৪১১ – ১৯০৮০ – ১৪৯৩২ – ১২৪৫৬ – ১০৮১৬ – ৯৬৫৪ – ৮৭৯১ টাকা – ৮১২৬ টাকা

৭,০০,০০০ টাকা – ৬১২১৭ – ৩১৯৮০ – ২২২৬০ – ১৭৪২০ – ১৪৫৩১ – ১২৬১৮ – ১১২৬৩ – ১০২৫৬ টাকা – ৯৪৮১ টাকা

৮,০০,০০০ টাকা – ৬৯৯৬১ – ৩৬৫৪৮ – ২৫৪৪০ – ১৯৯০৯ – ১৬৬০৭ – ১৪৪২১ – ১২৮৭২ – ১১৭২১ টাকা – ১০৮৩৫ টাকা

৯,০০,০০০ টাকা – ৭৮৭০৭ – ৪১১১৭ – ২৮৬২০ – ২২৩৯৭ – ১৮৬৮৩ – ১৬২২৩ – ১৪৪৮১ – ১৩১৮৫ টাকা – ১২১৮৯ টাকা

১০,০০,০০০ টাকা – ৮৭৪৫২ – ৪৫৬৮৫ – ৩১৮০০ – ২৪৮৮৬ – ২০৭৫৯ – ১৮০২৬ – ১৬০৯০ – ১৪৬৫১ টাকা – ১৩৫৪৩ টাকা

১১,০০,০০০ টাকা – ৯৬১৯৭ – ৫০২৫৪ – ৩৪৯৮০ – ২৭৩৭৪ – ২২৮৩৫ – ১৯৮২৯ – ১৭৬৯৮ – ১৬১১৬ টাকা – ১৪৮৯৭ টাকা

১২,০০,০০০ টাকা – ১০৪৯৪২ – ৫৪৮২২ – ৩৮১৬০ – ২৯৮৬৩ – ২৪৯১১ – ২১৬৩১ – ১৯৩০৭ – ১৭৫৮১ টাকা – ১৬২৫২ টাকা

১৩,০০,০০০ টাকা – ১১৩৬৮৭ – ৫৯৩৯১ – ৪১৩৪০ – ৩২৩৫১ – ২৬৯৮৬ – ২৩৪৩৪ – ২০৯১৬ – ১৯০৪৬ টাকা – ১৭৬০৬ টাকা

১৪,০০,০০০ টাকা – ১২২৪৩৩ – ৬৩৯৫৯ – ৪৪৫২০ – ৩৪৮৪০ – ২৯০৬২ – ২৫২৩৬ – ২২৫২৫ – ২০৫১১ টাকা – ১৮৯৬১ টাকা

১৫,০০,০০০ টাকা – ১৩১১৭৮ – ৬৮৫২৮ – ৪৭৭০০ – ৩৭৩৪০ – ৩১১৩৮ – ২৭০৩৯ – ২৪১৩৪ – ২১৯৭৬ টাকা – ২০৩১৫ টাকা

১৬,০০,০০০ টাকা – ১৩৯৯২৩ – ৭৩০৯৬ – ৫০৮৮০ – ৩৯৮১৭ – ৩৩২১৪ – ২৮৮৪১ – ২৫৭৪৩ – ২৩৪৪১ টাকা – ২১৬৬৯ টাকা

১৭,০০,০০০ টাকা – ১৪৮৬৬৮ – ৭৭৬৬৫ – ৫৪০৬০ – ৪২৩০৫ – ৩৫২৯০ – ৩০৬৪৪ – ২৭৩৫২ – ২৪৯০৬ টাকা – ২৩০২৩ টাকা

১৮,০০,০০০ টাকা – ১৫৭৪১৩ – ৮২২৩৩ – ৫৭২৪০ – ৪৪৭৯৪ – ৩৭৩৬৬ – ৩২৪৪৬ – ২৮৯৬১ – ২৬৩৭১ টাকা – ২৪৩৭৮ টাকা

১৯,০০,০০০ টাকা – ১৬৬১৫৮ – ৮৬৮০২ – ৬০৪২০ – ৪৭২৮২ – ৩৯৪৪১ – ৩৪২৪৯ – ৩০৫৭০ – ২৭৮৩৬ টাকা – ২৫৭৩২ টাকা

২০,০০,০০০ টাকা – ১৭৪৯০৩ – ৯১৩৭০ – ৬৩৬০০ – ৪৯৭৭১ – ৪১৫১৭ – ৩৬০৫২ – ৩২১৭৯ – ২৯৩০১ টাকা – ২৭০৮৫ টাকা

কমিউনিটি ব্যাংক লোন সুবিধা ও অসুবিধা

সুবিধা: কমিউনিটি ব্যাংক থেকে লোন নেয়ার সুবিধা অনেক। কমিউনিটি ব্যাংক স্বল্প সুদে লোন দিয়ে থাকে। লোন পরিশোধও সহজ। ব্যাংকটি দীর্ঘমেয়াদি লোন দিয়ে থাকে। বর্তমানে ৯% সুদে ১ থেকে ১০ বছর মেয়াদি লোন দেয় । এছাড়া ব্যাংকটি সহজ শর্তে জামানতবিহীন লোনও দিয়ে থাকে। কমিউনিটি ব্যাংকে ডিপিএস সুবিধাও রয়েছে। ব্যাংকটি ডিপিএসধারীদের ৬.২৫ থেকে ৮ শতাংশ লভ্যাংশ প্রদান করে।

অসুবিধা: কমিউনিটি ব্যাংক থেকে লোন নেয়ার কিছু অসুবিধা রয়েছে। কমিউনিটি ব্যাংক থেকে লোন পাওয়া তুলনামূলকভাবে জটিল এবং সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। এই ব্যাংকের লোন পদ্ধতি দীর্ঘ হয়ে থাকে। লোন মঞ্জুর হতেও দীর্ঘ সময় লেগে যায়। এছাড়া অনেক সময় লোনের বিপরীতে অতিরিক্ত চার্জ করা হয়। তাই লোন নেয়ার সময় কমিউনিটি ব্যাংক লোন তালিকা (কিস্তি চার্ট) সংগ্রহ করে রাখুন। অতিরিক্ত চার্জ করা হলে কমিউনিটি ব্যাংকের হেল্পলাইনে যোগাযোগ করুন।

By MD MOSTOFA

Permanent address:- vill: Ballavbishu, Post: Bhutchhara, Upazilla: kaunia, District: Rangpur

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *